Best tips for Website Owners

আসসালামু আলাইকুম, খলিফা নেটওয়ার্কে আপনাকে স্বাগতম!
কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছেন।

 

আজ আমরা কথা বলবো কেন আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর কম হয় এবং কিভাবে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর বাড়াবেন সেই সম্পর্কে।

আপনি আপনার সাইটে প্রতিদিন 1000+ ভিজিটর আশা করেন??
যদি আপনার সাইটের মেয়াদ 6 মাসের বেশি হয় এবং যদি আপনি আপনার সাইটের যথাযথ যত্ন নেন তবে আপনি প্রতিদিন 1000+ ভিজিটর আশা করতেই পারেন।

আপনি যদি আপনার সাইটে যথেষ্ট ভিজিটর না পান, কেন ভিজিটর আপনার সাইটে আসেনা তা নিয়ে কি ভেবে দেখেছেন কখনো!
আপনি কি ভাবে দেখেছেন কেন আপনি ভিজিটর পান না?

আপনার সব প্রচেষ্টা, কঠোর পরিশ্রম এবং অনেক মূল্যবান সময় সব কিছুই ব্যর্থ হবে যদি আপনি আপনার গ্রাহককে প্রথম বারেই হারিয়ে ফেলেন।
আপনি যদি আপনার গ্রাহককে আপনার সাইটে ধরে রাখতে চান তবে কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে, কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হবে।

আশা করি এই লেখাটি আপনার জন্য খুবই সহায়ক হবে।
কেন ভিজিটর আপনার সাইটে আসেনা তার অনেক কারণই থাকতে পারে, সেই কারণগুলো থেকে প্রধান ৫ (পাঁচটি) কারণ আপনারদের কাছে তুলে ধরলাম।

কেন কোন ভিজিটর এখনই আপনার সাইট থেকে দূরে চলে যাবে?
কেন আপনার সাইটে আর ঢুকবে না?

 

চলুন জেনে নেই মূল ৫টি (পাঁচটি) কারণ যা আপনাকে এড়িয়ে চলতে হবে!

best 5

1. বিরক্তিকর বিষয়বস্তু:

আপনি আপনার সাইটে লিখে যাচ্ছেন। কিন্তু সেই লেখা যদি কারোর ভালো না লাগে তাহলে আপনার সাইটে কেউ ভিজিট করবে না।
আপনি আপনার সাইটের পপুলারিটি বাড়ানোর জন্য অনেক অনেক কন্টেন্ট লিখে যাচ্ছেন কিন্তু সেই কন্টেন্টগুলো যদি ভালো মানের না হয় তাহলে কেন কেউ আবার আপনার সাইটে ভিজিট করবে?

আপনার এই সমস্যার সমাধান করতে হলে আপনাকে লেখার উপর মনযোগ দিতে হবে, আপনার লেখার দক্ষতা বাড়ানোর জন্য আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে, আপনার দক্ষতা বাড়ানোর জন্য বেশি বেশি ভালো ও বিখ্যাত ব্লগগুলি থেকে ভালো ভালো আর্টিকেল পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

“ভালো কন্টেন্ট / আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে আপনি ব্লগিং এ সফল হতে পারেন এইটাই প্রথম কাজ”,
এটা শুধুমাত্র আপনার ব্লগে ভিজিটর দিবে না, সাথে আপনার জন্য একটি কাঠামোও তৈরি করবে। আপনাকে পরিচয় করিয়ে দিবে সারা বিশ্বের সবার সাথে।

খারাপ মানের কন্টেন্ট আপনার ভিজিটরদের অন্য কোন ভালো সাইটে নিয়ে যাবে যা আপনার জন্য শুভ নয়। তাই আপনাকে ভালো মানের লেখায় দক্ষ হতে হবে।

 

2. ব্লগের খারাপ ডিজাইন:

কিছুকিছু ব্লগে গেলে মনে হয় তারা তাদের ব্লগের/সাইটের ডিজাইন কোন অদক্ষ ডিজাইনার দিয়ে করিয়েছে। আমি অনেক সাইটেই এখন আর ভিজিট করিনা কারণ হিসেবে শুধুমাত্র তাদের খারাপ ডিজাইন ও থিমের কারণে যদিও তাদের লেখা কন্টেন্টগুলো অনেক ভালো মানের।

ভিজিটর আপনার সাইটে বেশিদিন স্থায়ী হবেনা যদি আপনার সাইটের ডিজাইন ভালো না হয়।

আপনার সাইটটি সকলের কাছে সহজ, নিখুঁত ও মূল্যবান করে তুলুন সহজ ডিজাইনের মাধ্যমে।
সবাই যেন খুব সহজেই এটি সহজে পড়তে পারে, খুঁজতে পারে, দেখতে পারে।
আপনার সাইটে যদি ভাল মানের ডিজাইন থাকে এবং আকর্ষণীয় হয় তবে আপনি অনেক ভিজিটর পাবেন।
সুতরাং, আপনার সাইটের ডিজাইনটি ভালোমানের করে সাজানো উচিৎ।

 

3. ব্লগের/সাইটের নাম (ডোমেইন):

আপনার ব্লগের/সাইটের নাম (ডোমেইন) কি অনেএএএএএএক বড়!

আপনি যদি একটি লিংক থেকে কোন সাইটে ঢুকেন এবং দেখেন:-
www.kholifanetworkbangladeshasdfghjklqzwxecmunybtrfv.com.bd (এত্ত বড় নাম)!!

আপনিই মন থেকে বলুন। আপনি নিজে কতবার এই সাইটটিতে ঢুকবেন। 😛

আপনি যদি হাজার শব্দও মনে রাখতে পারেন গ্যারান্টি দিলাম এত্ত বড় ডোমেইনের নাম (url) সহজে মনে রাখতে পারবেন না।

আপনি নিজেই যদি এত্ত বড় সাইটে না ঢুকেন তাহলে আপনি কিভাবে ভিজিটর পাবার আশা করেন?
এত্ত বড় url এ কে ঢুকবে?
তাই অবশ্যই ডোমেইন কেনার সময় আপনার ডোমেন নামটি (url) ছোট রাখুন।
এমন একটি নাম বাছাই করুন যা সবাই সহজেই মনে রাখতে পারবে।
তাহলেই আপনি বেশি ভিজিটর পাবেন।
যা আপনার জন্য লাভজনক হবে।

 

4. খারাপ নেভিগেশান:

আপনার ব্লগে যদি কোনও খারাপ নেভিগেশান থাকে তবে আপনি আপনার সাইটে ভিজিটর পাবেন না।
আপনার পাঠকরা সহজেই আপনার সাইট থেকে দূরে সরে যাবে যদি আপনার কাছে সঠিক নেভিগেশান না থাকে।

আপনার সাইট থেকে খারাপ নেভিগেশন দূর করার উপায়:

আজেবাজে ফন্ট:

আজেবাজে ফন্ট সবাই পছন্দ করে না।
আপনার সাইটে ট্যারা-ব্যাকা ফন্ট দিয়ে রাখবেন না। যদি এমন করেন তাহলে ভিজিটর ভাববে এই সাইটটি কোন পাগলের! 😛
তাই ফাউল কোন ফন্ট সাইটে ব্যবহার করবেন না, যা পড়া কঠিন।
আপনার ব্লগে সহজ ও সুন্দর দেখে ১/২ টি ফন্ট ব্যবহার করুন যেন সবাই সহজে পড়তে পারে।
সাইটে ফন্টের আকার খুব ছোট বা বড় না করে মাঝারি সাইজ ব্যবহার করুন।
লেখার শিরোনাম হাইলাইট করুন যাতে সবাই সহজেই বিষয়বস্তু পড়তে পারে।

সোশ্যাল শেয়ারিং অপশন:
সোশ্যাল শেয়ারিং অপশন বেশি ব্যবহার করবেন না, বেশি শেয়ারিং অপশন ব্যবহার করলে সাইট লোড হতে অনেক সময় নেয়, যা খুবই বিরক্তিকর। সর্বনিম্ন ৩ টি এবং সর্বোচ্চ ৫ টি সোশ্যাল শেয়ারিং অপশন ব্যবহার করতে পারেন।
যেমন: Facebook, Twitter, Google+, Pinterest এবং instagram.

কম শেয়ারিং অপশন ব্যবহার করলে সাইট দ্রুত লোড হয় যা সবার পছন্দ।
সাইট দ্রুত লোড হলে অনেক ভিজিটর পাবেন।

 

5. যথেষ্ট আপডেট না থাকা:

আপনার ব্লগে / সাইটে যদি নিয়মিত আপডেট না দেন।
যদি নতুন পোষ্ট না দেন তাহলে ১ জন ভিজিটর কয়বার ১ লেখা পড়বে?
১ জন ভিজিটর যদি ৫/১০ দিন পর আপনার সাইটে ভিজিট করে দেখে আপনার সাইটে কোন আপডেট নাই তখন সে অন্য কোন সাইট খুঁজে বের করবে এবং সেখানেই যাবে আপনার সাইটে আর আসবেনা।

যেকোন সাইট তাদের ভিজিটর এই কারণটির কারণেই বেশি হারায়।
ভিজিটর কম আসার প্রধান কারণ এর মধ্যে অন্যতম কারণই হল নিয়মিত পোস্ট আপডেট না দেয়া।

তাই অন্তত প্রতি ৪/৫ দিন পরপর নতুন পোস্ট দিতে হবে।
এই বিষয়টি অবশ্যই মনে রাখবেন।

উপরের এই ৫ টি সমস্যার সমাধান করে এগোতে পারলে অবশ্যই অনেক ভিজিটর পাবেন।